শেরপুরের সেই ভিক্ষুককে ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে’ বাড়ি

শেরপুরের সেই ভিক্ষুককে ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে’ বাড়ি

করোনাভাইরাস মহামারীতে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের সহায়তায় ১০ হাজার টাকা দান করা শেরপুরের সেই ভিক্ষুক বৃদ্ধ নজিমুদ্দিনকে বাড়ি দেওয়া হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে।

জেলার ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুবেল মাহমুদ জানান, মঙ্গলবার রাতে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে নাজিমউদ্দিনকে ভিটেমাটি ও পাকা বাড়ি করে দেওয়ার নির্দেশ এসেছে।

ঝিনাইগাতী উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের গান্ধীগাঁও গ্রামের ইয়ার আলীর ছেলে নজিমুদ্দিন (৮০) ভিক্ষা করে সংসার চালান। বসতঘর মেরামত করার জন্য দুই বছর ধরে জমিয়েছিলেন ভিক্ষার ১০ হাজার টাকা।

ওই টাকা তিনি কোভিড-১৯ মহামারীতে ঘরবন্দি কর্মহীন মানুষের জন্য দান করেন। টাকাটা তিনি ইউএনও রুবেল মাহমুদের কাছে ত্রাণ তহবিলের জন্য দেন।

ইউএনও বলেন, “নাজিম উদ্দিনের টাকা দেওয়ার খবর গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। রাতে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে নাজিমউদ্দিনকে ভিটেমাটি ও পাকা বাড়ি করে দেওয়ার নির্দেশ আসে।”

নাজিম উদ্দিনকে খাসজমি বন্দোবস্তসহ বাড়ি করে দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে জানান ইউএনও।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *