বাজেটের ৬৩ হাজার ৮০১ কোটি টাকা যাবে সুদ দিতে

বাজেটের ৬৩ হাজার ৮০১ কোটি টাকা যাবে সুদ দিতে

সুদের অর্থ পরিশোধে সরকারকে ৬৩ হাজার ৮০১ কোটি টাকা ব্যয় করতে হবে, যা ২০২০-২১ অর্থবছরের মোট জাতীয় বাজেট বরাদ্দের ১১.২৩ শতাংশ। বৃহস্পতিবার (১১ জুন) জাতীয় সংসদে বাজেট ঘোষণার সময় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এ বিষয়টি তুলে ধরেন।

মন্ত্রী বলেন, ২০২০-২১ অর্থবছরে মোট ব্যয়ের পরিমাণ ধরা হয়েছে পাঁচ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকা, যা জিডিপির ১৭.৯ শতাংশ।

পরিচালন ও অন্যান্য ব্যয়ের জন্য মোট বরাদ্দ ধরা হয়েছে তিন লাখ ৬২ হাজার ৮৫৫ কোটি টাকা এবং বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) জন্য বরাদ্দ হয়েছে দুই লাখ ৫ হাজার ১৪৫ কোটি টাকা।

অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, ঋণদান এবং অন্যান্য ব্যয়ের জন্য দিতে হবে চার হাজার ৭৭৭ কোটি টাকা, যা মোট বরাদ্দের ০.৮৪ শতাংশ।

আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে সামাজিক অবকাঠামোগত কর্মসূচির জন্য বরাদ্দ প্রস্তাবিত ব্যয় এক লাখ ৫৫ হাজার ৫৩ কোটি টাকা, যা মোট বরাদ্দের ২৭.৩৮ শতাংশ। এর মধ্যে মানবসম্পদ খাতের (শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও অন্যান্য সম্পর্কিত খাত) জন্য বরাদ্দ হবে এক লাখ ৪০ হাজার ২২২ কোটি টাকা।

‘ভৌত অবকাঠামো খাতের জন্য এক লাখ ৬৭ হাজার ১১ কোটি টাকা বরাদ্দ প্রস্তাব করা হয়েছে, যা মোট বরাদ্দের ২৯.৪০ শতাংশ। এর মধ্যে সামগ্রিক কৃষি ও পল্লী উন্নয়নে ৬৯ হাজার ৫৫৩ কোটি টাকা, সামগ্রিক যোগাযোগের জন্য ৬১ হাজার ৪৩৫ কোটি টাকা এবং বিদ্যুত খাতে ২৬ হাজার ৭৫৮ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে,’ বলেন অর্থমন্ত্রী।

মন্ত্রী আরো বলেন, সাধারণ পরিষেবাগুলোর জন্য এক লাখ ৪০ হাজার ২৬৫ কোটি টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে, যা মোট বরাদ্দের ২৪.৬৯ শতাংশ।

এ ছাড়া, সরকারি-বেসরকারি অংশীদারি (পিপিপি) প্রকল্প, বিভিন্ন শিল্পে আর্থিক সহায়তা, বিভিন্ন ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ভর্তুকি ও ইক্যুইটি বিনিয়োগ বাবদ ৩৬ হাজার ৬১০ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে, যা মোট বরাদ্দের ৬.৪৫ শতাংশ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *