বাংলাদেশের জন্য বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামের প্রশংসায় এরদোগান

বাংলাদেশের জন্য বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামের প্রশংসায় এরদোগান

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মত্যাগের প্রশংসা করে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিচেপ তাইয়েপে এরদোগান আজ বলেন, জাতির জন্য সংগ্রাম ও আত্মত্যাগের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু বিংশ শতাব্দীর বিশিষ্ট রাষ্ট্রনায়কদের মধ্যে স্থান করে নিয়েছেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দেওয়া এক লিখিত বার্তায় তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী…আপনার শ্রদ্ধেয় পিতা প্রয়াত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সারা জীবন জাতির জন্য যে সংগ্রাম ও ত্যাগ স্বীকার করেছেন, তার মধ্যদিয়ে বিংশ শতাব্দীর বিশিষ্ট রাষ্ট্রনায়কদের মধ্যে তিনি জায়গা করে নিয়েছেন।’
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জযয়ন্তী উপলক্ষে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে ১০ দিনব্যাপী বিশেষ অনুষ্ঠানের সমাপনী দিনে বাংলাদেশে তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মোস্তফা ওসমান প্রেসিডেন্টের বার্তা পাঠ করেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।
এরদোগান বলেন, সাধারণ ঐতিহাসিক ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের মূলে থাকা দুই দেশের (বাংলাদেশ ও তুরস্ক) জনগণের মধ্যে ভ্রাতৃত্বের অনুভূতি দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান সম্পর্কের বিকাশকে আরও শক্তিশালী করে।
তিনি আরও বলেন, আমার বিশ^াসকে আপনাদের সঙ্গে ভাগাভাগি করতে চাই, ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন করা হচ্ছে, আমরা জনগণের দ্বিপাক্ষিক স্বার্থের ভিত্তিতে সকল ক্ষেত্রে আমাদের সম্পর্ক ও সহযোগিতা আরও গভীর করব, যা ২০২০ সালে বঙ্গবন্ধুর ১০০তম জন্মদিন উপলক্ষে ‘মুজিব বর্ষ’ হিসেবে আমাদের যৌথ প্রচেষ্টা শক্তিশালী করতে ঘোষিত হয়েছিল।
স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে তিনি বাংলাদেশের জনগণকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *