প্রধানমন্ত্রী সব প্রাকৃতিক দুর্যোগে অসহায় ও ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে আছেনঃ প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী সব প্রাকৃতিক দুর্যোগে অসহায় ও ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে আছেনঃ প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, শেখ হাসিনার শাসনামলে একটি মানুষও না খেয়ে মারা যাবে না। তিনি সব প্রাকৃতিক দুর্যোগে অসহায় ও ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে আছেন।

রবিবার (২৮ জুন) দুপুরে বুলবুল ও আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও প্রতিষ্ঠানের মধ্যে টিন ও নগদ টাকা বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী রেজাউল করিম বলেন, প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) মতো ভয়াবহ মহামারিতে এখন পর্যন্ত দেশে একজন মানুষও না খেয়ে মারা যায়নি। শেখ হাসিনার সরকার জনবান্ধব সরকার। তিনি দেশের সব ক্রান্তিকালে দেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে রাখছেন। যেমনটি রেখেছিলেন জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

বঙ্গবন্ধু দেশের স্বাধীনতার জন্য যে ভুমিকা রেখেছিলেন ও নিজের জীবন বাজি রেখে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তা পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল। দেশ স্বাধীনের পরে বিধ্বস্ত দেশের প্রতিটি এলাকায় ঘুরে ঘুরে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি।

নাজিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. ওবায়দুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা চেয়ারম্যান মাস্টার অমূল্য রঞ্জন হালদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মোশারেফ হোসেন খান, সমাজ সেবক ও মুক্তিযোদ্ধা এসএম নজরুল ইসলাম বাবুল, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ আব্দুল লতিফ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. মোস্তাফিজুর রহমান রঞ্জু, জেলা যুবলীগ সভাপতি মো. আক্তারুজ্জামান ফুলু, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় নেতা মো. আতিয়ার রহমান চৌধুরী নান্নু, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. ইস্রারাফিল হোসেন প্রমুখ।

এসময় উপজেলার ২৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ ১৪৯ জন ক্ষতিগ্রস্তকে ২০০ বান্ডিল টিন ও প্রতি বান্ডিলের খরচ বাবদ ৩ হাজার টাকা দেন।

পরে একইদিন উপজেলা মৎস্য অফিসের উদ্যোগে সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা গৌতম মণ্ডলের সভাপতিত্বে উপজেলার দুইটি মৎস্য সমবায় সমিতির ৪০ জন উপকারভোগীর জন্য ৪টি সেচ যন্ত্র ও একটি স্টিলবডি ট্রলার প্রদান করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া চেয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, বিএনপি সরকারের আমলে দেশে প্রচুর লুট-পাট হয়েছে। আর শেখ হাসিনার সময়ে জনগণের সব চাহিদা পূরণ করা হয়। তাই শেখ হাসিনার সরকারই এদেশের জনগণের জন্য উপযুক্ত।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *