করোনাভাইরাস: মৃত্যু বেড়ে ২১৪, আক্রান্ত ১৩৭৭০

করোনাভাইরাস: মৃত্যু বেড়ে ২১৪, আক্রান্ত ১৩৭৭০

একদিনে আরও ৮ জনের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে নতুন করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২১৪ জন।

শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৬৩৬ জনের মধ্যে সংক্রমণ ধরা পড়ায় আক্রান্তের মোট সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৩ হাজার হাজার ৭৭০ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত বুলেটিনে যুক্ত হয়ে অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা শনিবার দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির এই সবশেষ তথ্য তুলে ধরেন।

তিনি জানান, সারা দেশে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩১৩ জন, এ নিয়ে মোট ২ হাজার ৪১৪ জন সুস্থ হলেন।

গত এক দিনে যারা মারা গেছেন, তাদের সবাই পুরুষ। তাদের মধ্যে দুই জনের বয়স ছিল সত্তরের বেশি। দুইজনের বয়স ছিল ৬১-৭০ বছরের মধ্যে, একজনের ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, ২ জনের ৪১-৫০ বছরের মধ্যে এবং একজনের ৩১ -৪০ বছরের মধ্যে।

নাসিমা সুলতানা বলেন, শনাক্তের সংখ্যা বিবেচনায় এখন পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫ শতাংশ এবং সুস্থতার হার ১৭ দশমিক ৫ শতাংশ।

আর সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টার তথ্য হিসাব করলে সুস্থতার হার ৯১ দশমিক ৮ শতাংশ এবং মৃত্যু হার ৮ দশমিক ২ শতাংশ।

সারা দেশে মোট ৩৫টি ল্যাবে গত এক দিনে ৫ হাজার ৪৬৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে বলে বুলেটিনে জানানো হয়।

নাসিমা সুলতানা বলেন, এখন ঢাকা বিভাগে কোভিড -১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৯ হাজার ১১৭ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৫৭৬ জন, সিলেট বিভাগে ১৬৩ জন, রংপুর বিভাগে ২৬৩ জন, খুলনা বিভাগে ২১১ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ৪০০ জন, বরিশাল বিভাগে ১৩০ জন এবং রাজশাহী বিভাগে ১৫৩ জন।

সারা দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে ১৯৬ জনকে, বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ২ হাজার ১৭ জন।

সারা দেশে এখন আইসোলেশন শয্যা আছে ৮ হাজার ৬৩৪টি। নতুন করে চট্টগ্রাম বিভাগে ৪০টি আইসোলেশন শয্যা বেড়েছে। এছাড়া ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৫০০টি ও কলেজের নার্সিং ডরমেটরিতে আরও ২০০টি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত করা হচ্ছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *