‘আমার সরকার’ ঝাঁকালেই জরুরি সেবা

‘আমার সরকার’ ঝাঁকালেই জরুরি সেবা

সরকারি সব সেবা এক অ্যাপে আনার অঙ্গীকার নিয়ে ‘আমার সরকার’ বা ‘মাই গভ’ অ্যাপ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ‘ডিজিটাল বাংলাদেশের অবদান, এক ঠিকানায় সব সমাধান’ এই স্লোগানে অ্যাপটি তৈরি করেছে দেশের স্বনামধন্য আইটি প্রতিষ্ঠান অরেঞ্জ বিজনেস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড (অরেঞ্জবিডি লিমিটেড)।

বুধবার (৮ জানুয়ারি) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) ‘তৃতীয় ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস ২০১৯ সম্মাননা প্রদান’ অনুষ্ঠানে অ্যাপটির উদ্বোধন করেন তিনি।

অরেঞ্জবিডির তৈরি করা অ্যাপটিতে পাওয়া যাবে—জরুরি সেবা, জমির খতিয়ান সংক্রান্ত তথ্য জানা, বিপদে পড়লে সাহায্য নেওয়াসহ নানান কিছু। এছাড়াও কেউ বিপদে পড়লে অ্যাপটি খুলে মোবাইল ফোন ঝাঁকালে সরাসরি ৯৯৯ নম্বরে কল চলে যাবে। একই সঙ্গে ব্যবহারকারীগণ ৩৩৩ নম্বরে কল করেও নানা ধরনের তথ্য ও সেবা নিতে পারবেন অ্যাপটি থেকে।

‘আমার সরকার’ ঝাঁকালেই জরুরি সেবা

এই অ্যাপ থেকে প্রয়োজনীয় তথ্যের সেবার জন্য আবেদন, কাগজপত্র দাখিল, আবেদনের ফি পরিশোধ এবং আবেদন পরবর্তী আপডেট জানা যাবে। শুধুমাত্র ভয়েস ব্যবহার করেও সেবার আবেদন, আপডেটসহ অন্যান্য বিষয় জানা যাবে। আবেদনকারীর পরিচয় নিশ্চিত করা হবে জাতীয় পরিচয়পত্রের মাধ্যমে।

এ প্রসঙ্গে অরেঞ্জ বিডি লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আল-আশরাফুল কবীর জুয়েল বলেন, ২০১৫ সাল হতে আমরা এটুআই-এর নির্দেশনায় সরকারের বিভিন্ন সেবা ডিজিটালাইজেশন এর কাজ করছি। তারই ধারাবাহিকতায় এটুআই এর নির্দেশনায় ২০১৯ সালে সরকারি সকল সেবা একক প্লাটফর্মে পেতে একসেবা নামক একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা হয়। এক সেবার সকল সেবা আরো সহজতর করতে ‘আমার সরকার বা মাই গভ’ অ্যাপটি করা হয়েছে। সরকারের এ ধরণের কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকতে পেরে আমরা গর্বিত এবং আনন্দিত। অ্যাপসটিতে এখন সাতটি ক্যাটেগরিতে সেবা সংযুক্ত করা হয়েছে। যেখানে ১৭২টি সেবা যুক্ত হয়েছে। এ ছাড়াও আরো সরকারি ও বেসরকারি সেবা অ্যাপটিতে যুক্ত করা হবে।

গুগলের প্লে স্টোর থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে। অথবা ক্লিক করতে পারেন এখানে : MyGov

অ্যাপটিতে সাতটি ক্যাটেগরিতে সেবা সংযুক্ত করা হয়েছে। যেখানে ১৭২টি সেবা যুক্ত হয়েছে। এছাড়াও আরও সরকারি ও বেসরকারি সেবা অ্যাপটিতে যুক্ত করা হবে।

সম্মাননা অনুষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক; ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি একেএম রহমতুল্লাহ, তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এনএম জিয়াউল আলম উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে ১৫ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেওয়া হয়।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *