আওয়ামী লীগ ব্যবসা করতে আসেনি: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আওয়ামী লীগ ব্যবসা করতে আসেনি: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

রফতানি তালিকায় আরো নতুন পণ্য যোগ করার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অর্থনৈতিক কূটনীতির মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। তিনি বলেন, জনগণের ক্রয়ক্ষমতা বাড়ানোর লক্ষেই সরকার কাজ করছে।

রোববার( ০১ সেপ্টেম্বর) সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জাতীয় রপ্তানি ট্রফি বিতরণ অনুষ্ঠানে একথা বলেন তিনি।

এ সময় শিল্পাঞ্চল গড়ে তোলার সময় বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও পরিবেশ সংরক্ষণের ওপর গুরুত্ব দিতে উদ্যোক্তাদের নির্দেশ দেন শেখ হাসিনা।

ক্রম অগ্রসরমান বাংলাদেশের বর্তমান উন্নয়ন যাত্রায় গেলো কয়েক বছরের রপ্তানি প্রবৃদ্ধির রেকর্ড নিঃসন্দেহে শক্তিশালী করেছে অর্থনীতিকে; বিশ্ব পরিমণ্ডলে উজ্জ্বল করেছে বাংলাদেশের মুখ।

১০ বছর আগেও যেখানে বার্ষিক রপ্তানির অংক ১৪ বিলিয়নে ঘুরপাক খেয়েছে, তখন গেলো অর্থবছরে দেশের রপ্তানি আয় ৪৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। লক্ষ্য রয়েছে ২০২১ সাল নাগাদ ৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বাংলাদেশ অর্জন করবে রপ্তানি থেকে।

অর্থনীতির এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় রপ্তানিকারকদের উৎসাহিত করতে প্রতিবছরের মতো এবারও আয়োজিত হলো জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান অনুষ্ঠানের। সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জন্য ২৮ ক্যাটাগরিতে দেশ সেরা ৬৬ জনকে জাতীয় রপ্তানি ট্রফি তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী রপ্তানির বাজারে নতুন পণ্য যোগ করার পাশাপাশি অর্থনৈতিক কূটনীতি কাজে লাগানোর আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষের জীবনমান উন্নত করতে আমরা সক্ষম হয়েছি। দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

শেখ হাসিনা বলেন, বিনিয়োগ পরিস্থিতি আরো ত্বরান্বিত করতে ব্যাংকের সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনার চেষ্টা করছে সরকার। সচেতন থাকতে বলেন, পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখার ওপরও।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিল্পোন্নয়নের সাথে সাথে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও পরিবেশ সংরক্ষণের ওপরও খেয়াল রাখতে হবে।

সরকার ২০২৩-২৪ অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি ডাবল ডিজিটে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ব্যবসা করতে আসেনি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *